Photobazar24
রবিবার / ২৫শে জুন ২০১৭

বিশেষ খবর
 গ্রেনেড হামলা মামলায় রাষ্ট্রপতির কাছে মুফতি হান্নানের প্রাণভিক্ষার আবেদন
সর্বশেষ খবর
খবরের ছবি
খেলা
সেঞ্চুরি দিয়ে ‘রান্না করবেন’ সাকিবের স্ত্রী
সেঞ্চুরি দিয়ে ‘রান্না করবেন’ সাকিবের স্ত্রী

ফটোবাজার ; ‘এটা আমার স্বাভাবিক খেলা। আমি এভাবেই খেলতে পছন্দ করি’ হায়দরাবাদ টেস্টে নিজের অতিরিক্ত শট খেলার প্রবণতা নিয়ে বলেছিলেন সাকিব আল হাসান। এ নিয়ে কম আলোচনা-সমালোচনা হয়নি গত কিছুদিনে। কাল শেষ বিকেলে দ্রুত তিন উইকেট পড়ে যাওয়ার পর প্রায় প্রতি বলে সাকিবের মেরে খেলার ধরন নিয়েও অনেক সমালোচনা হয়েছে।
শুক্রবার পি সারা ওভালে টেস্ট ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি করেছেন সাকিব। এর পর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পোস্ট দেন সাকিবের স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির। সাকিব নিজের জন্য খেলে এই সমালোচনার জবাবে শিশির বিদ্রূপ করে লিখেছেন, ‘আরেকটি অপরাধ করলে! প্লিজ এই ১০০ রান বাসায় নিয়ে এসো যাতে আমরা সেগুলো দিয়ে তরকারি রেঁধে খেতে পারি। তুমি তো নিজের জন্য খেলো! নিশ্চয়ই তুমি ভালো কিছু করোনি।’
সাকিবে মুগ্ধ অভিনেত্রী সুবর্ণা মোস্তফা সেখানে মন্তব্য করেছেন, ‘সাকিব আল হাসান একজনই। আগেও ছিল না, ভবিষ্যতেও হবে না।’ আবেগে থরথর বিপুল এ প্রশংসার মধ্যেও একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী সেখানে কিছু ক্রিকেটীয় ব্যাখ্যা দিয়েছেন, ‘সাকিব আজ যেমন খেলেছেন সেটি তাঁর ‘আমি তো এভাবেই খেলি’ ধরনের নয়। তিনি সারা দিন ঝুঁকি বলতে একেবারেই নেননি। পুরোটাই মাটিতে খেলেছেন। এক রান বের করে খেলেছেন। সৈকত (মোসাদ্দেক হোসেন) যখন মেরেছেন তখন তাকে মাথা ঠান্ডা করতে বলেছেন, বুঝিয়েছেন। সাকিব ওভাবে না খেলে এভাবে খেললে তাঁর পাঁচটার জায়গায় ১৫টা সেঞ্চুরি থাকত। এখন থেকে তাঁর এভাবেই খেলা উচিত।’

বিনোদন
‘বাহুবলী দ্য কনক্লুশান’র নতুন পোস্টার প্রকাশ
‘বাহুবলী দ্য কনক্লুশান’র নতুন পোস্টার প্রকাশ

ফটোবাজার ;  আবারো ফিরছে ‘বাহুবলী’। সদ্য মুক্তি পেয়েছে ‘বাহুবলী দ্য কনক্লুশান’ এর নতুন পোস্টার। সেখানে ফিরে এসেছে বাহুবলী ও কাটাপ্পার ইতিহাস।
পরিচালক এস এস রাজামৌলি আলো ফেলেছেন সেই পরিচিত সম্পর্কের ওপর। টুইট করে পোস্টার মুক্তির কথা জানিয়েছেন তিনি। পোস্টারে দেখা যাচ্ছে শিশু বাহুবলীকে কোলে নিয়ে হাসছেন কাটাপ্পা।
তার ঠিক নীচে রয়েছে সেই ক্লাইম্যাক্স মুহূর্ত, যেখানে বড় হওয়ার পর বাহুবলীকে খুন করছেন কাটাপ্পাই। কেন এই খুন? তার উত্তর নাকি পাওয়া যাবে এই ছবিতেই।
মাঝে শোনা গিয়েছিল, বাহুবলীর গল্প নাকি ফাঁস হয়ে গিয়েছে। কিন্তু সে সবই গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন পরিচালক। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ২৮ এপ্রিল মুক্তি পাবে ছবিটি।
২০১৫ সালে মুক্তি পাওয়া ‘বাহুবলী’র থেকেও নতুন সিকুয়্যালটি আরো বেশি বাণিজ্যিকভাবে সফল হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

লাইফস্টাইল
কম সময়ে ওজন কমাতে জীবনযাত্রায় ৭টি পরিবর্তন আনুন
কম সময়ে ওজন কমাতে জীবনযাত্রায় ৭টি পরিবর্তন আনুন

ফটোবাজার ; বাড়ি বসেই ওজন কমাতে চান? তাও আবার কম সময়ে। চিন্তা নেই এমনটাও করা সম্ভব। তবে তার জন্য কতগুলি নিয়ম মেনে চলতে হবে। তাহলেই একেবারে কেল্লাফতে! ওজন কমানো কিন্তু মোটেও সহজ কাজ নয়। তবে এই লেখায় আলোচিত পদ্ধতিগুলি মেনে চললে এই কঠিন কাজও একেবারে সোজা হয়ে যাবে।
প্রসঙ্গত, অতিরিক্ত ওজন কিন্তু একেবারেই ভাল নয়। কারণ এর থেকে একাধিক মারণ রোগ, যেমন- ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরল, উচ্চ রক্তচাপ এবং হার্টের রোগ হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই সুস্থ ভাবে বেঁচে থাকতে ওজন কমানো একান্ত প্রয়োজন।
একাধিক কারণে ওজন বাড়তে পারে। যেমন- হরমোনাল ইমব্যালেন্স, অস্বাস্থ্যকর ডায়েট, শরীরচর্চা না করা, হাই কোলেস্টেরল, পারিবারিক ইতিহাস প্রভৃতি। তবে কারণ যাই হোক না কেন, ওজন কমাতে যদি যথাযথ ব্যবস্থা না নেন, তাহলে কিন্তু বিপদ!
তবে চিন্তার কোনও কারণ নেই। আজ থেকেই এই নিয়মগুলি মেনে চলুন। তাহলেই দেখবেন নিমেষে ওজন কমতে শুরু করবে:

১. প্রথমত, ডায়েটের দিকে নজর দিতে হবে। ঠিক মতো খাওয়া-দাওয়া করাটা ওজন কমানোর প্রথম শর্ত। তাই পুষ্টিকর খাবার বেশি করে খান। কমান ভাজা-পোড়া খাওয়া। সেই সঙ্গে লাল মাংস, ফ্যাট মিল্ক প্রভৃতি খাওয়াও চলবে না কিন্তু! প্রয়োজনে চিকিৎসকের সঙ্গে পরমার্শ করে একটা ডায়েট চার্ট বানিয়ে নিতে পারেন।
২. ৩-৪ ঘন্টা অন্তর অন্তর কিছু না কিছু খাবার খাওয়ার চেষ্টা করবেন। কারণ যে কোনও খাবার হজম হতে কম করে এই সময়টা লাগে। এই নিয়ম মেনে খাবেন তো হজম ক্ষমতা বাড়বে। আর যত এমনটা হবে তত শরীরে চর্বি কম জমবে, ফলে কমবে ওজন।
৩. জাঙ্ক ফুড খাওয়া যেমন চলবে না, তেমনি ভাজা-পোড়া খাবারও এড়িয়ে চলতে হবে। এমনটা করলে দেখবেন ওজন কমতে শুরু করেছে।
৪. ওজন কমাতে শরীরচর্চার কোনও বিকল্প নেই। তাই তো প্রতিদিন কোনও একটা নির্দিষ্ট সময়ে নিময় করে ব্যায়াম করুন। আপনার পছন্দ মতো যে কোনও ব্যায়াম করতে পারেন। সেটা যোগ ব্যায়ম হতে পারে, হতে পারে জুম্বা বা জিমিং।
৫. বিশেষজ্ঞদের মতে ঘুম থেকে উঠেই যদি শরীরচর্চা করা যায়, তাহলে মেটাবলিজম বা হজম ক্ষমতা বেড়ে যায়। ফলে খাবার তাড়াতাড়ি হজম হতে শুরু করে। এমনটা হলে শরীরে অতিরিক্ত মেদ জমার কোনও সুযোগই থাকে না।
৬. ওজন কমাতে সামনে একটা লক্ষ স্থির করে নিন। এমনটা করলে দেখবেন অস্বাস্থ্যকর খাবার ছাড়তে সমস্যা কম হবে। সেই সঙ্গে শ্রম বেশি দিতে পারবেন। বাড়বে মনের জোরও। ফলে তাড়াতাড়ি ওজন কমবে। তবে প্রথমেই খুব কঠিন কোনও লক্ষ্য নির্ধারণ করবেন না। ধীরে ধীরে লক্ষ্যটা বাড়াবেন, এমনটা করলে দেখবেন বেশি ভাল ফল পাবেন।
৭. ওজন কমাতে চিকিৎসক যেমন ডায়েট চার্ট বানিয়ে দেবেন সেই মতো খাবেন। ইচ্ছা হলেও জাঙ্ক ফুড বা ভাজা-পোড়া খাবেন না। তবে ইচ্ছা মতো ঘুরিয়ে ফিরয়ে খাবার খেতেই পারেন। তবে সেটা হতে হবে স্বাস্থ্যকর।

জানা-অজানা
পিঁপড়া সম্পর্কে কিছু জানা-অজানা অদ্ভুত তথ্য

ফটোবাজার ;  রানী পিঁপড়ের পাখা থাকে। কর্মী পিঁপড়া সবসময় কাজ করে। ওদেরও পাখা গজায় তবে সেটা অনেক দেরিতে অর্থাৎ ওদের মৃত্যুর কিছুটা আগে।

২। পিঁপড়েদের মধ্যে কোনো রাজা নেই। তবে পিঁপড়ে কলোনিতে বেশ কিছু ছেলে পিঁপড়ে থাকে। ওদের দ্রণ বলে ডাকা হয়। সারা জীবনে খাওয়া ছাড়া ওরা আর কোনো কাজ করে না।

৩। পিঁপড়ে হচ্ছে সামাজিক পোকা। দলবল ছাড়া চলতে পারেনা। তাই সঙ্গী-সাথীদের নিয়ে লাইন ধরে চলে চলাচল করে।

৪। পিঁপড়ের শরীর থেকে ফেরোমোনেস (Pheromones) নামক এক ধরনের গন্ধযুক্ত রাসায়নিক পদার্থ বের হয়। যখন ওরা কোথাও যায় তখন সারা রাস্তায় ওটা লেগে যায়। ফেরার সময় সেই গন্ধ শুকে শুকে কলোনিতে ফিরে আসে।

৫। কর্মী পিঁপড়েরা রানী আর বাচ্চা পিঁপড়ের দেখাশোনা করে। মাঝ বয়সে ওরা বেরোয় খাবার খুঁজতে। আর শেষ বয়সে ওরা সৈনিকের দায়িত্ব পালন করে। তখন ওরা পিঁপড়ে কলোনির নিরাপত্তা বজায় রাখে।

৬। এক কলোনির পিঁপড়েরা অনেক সময় অন্য কলোনি আক্রমণ করে বসে। আক্রমণ করে অন্যদের জমানো খাবার, আর বাচ্চাদের নিয়ে যায়।

৭। পিঁপড়েরা তাদের দেহের ওজনের দশগুণ বেশি ওজন বহন করতে পারে।

৮। পিঁপড়েরা যেখানে বাস করে তাদের পিঁপড়ে কলোনি বলে। একটা কলোনিতে একজন রানী পিঁপড়ে, কয়েকজন ছেলে পিঁপড়ে আর অসংখ্য কর্মী পিঁপড়ে থাকে।

পাঠকের পাতা
প্রিয় পাঠকবৃন্দ আপনার চারপাশের বিভিন্ন মজার দৃশ্য বা সামনে ঘটে যাওয়া ঘটনা মোবাইল ফোন অথবা ক্যামেরায় তুলে তা পাঠিয়ে দিন আমাদের ই-মেইলে। আমরা তা প্রকাশ করবো পাঠকবৃন্দের নিকট । ছবি নাম ঠিকানা দিয়ে পাঠিয়ে দিন আমাদের এই ঠিকানায়

info@photobazar24.com

প্রধান ছবি