Photobazar24
শুক্রবার / ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৭

ডিএসইর নতুন পরিচালক হলেন হানিফ ভূঁইয়া ও শরীফ আতাউর 

আপডেট: 2017-03-21 20:06:23
ডিএসইর নতুন পরিচালক হলেন হানিফ ভূঁইয়া ও শরীফ আতাউর 

 দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) শেয়ারহোল্ডার নির্বাচনে পরিচালক হয়েছেন র‌্যাপিড সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. হানিফ ভূঁইয়া ও স্যার সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শরীফ আতাউর রহমান। মঙ্গলবারের নির্বাচনে তারা ভোটের মাধ্যমে পরিচালক নির্বাচিত হয়েছেন।
মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় মতিঝিলে ডিএসই ভবনের নিচতলায় এ ভোটগ্রহণ শুরু হয়। যা বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলে। এরপরে ভোট গণনা শেষে ফলাফল জানায় নির্বাচন কমিশন। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করা হবে ডিএসইর ৫৫তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএমে)।
নির্বাচনে সর্বোচ্চ ১৪৯ ভোট পেয়ে মো. হানিফ ভূইয়া পরিচালক নির্বাচিত হয়েছেন। এরপরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১১৪ ভোট পেয়ে পরিচালক হয়েছেন শরীফ আতাউর রহমান। আর অপর দুই প্রতিযোগির মধ্যে খাজা আসিফ আহমেদ ৮৮ ভোট ও মো. মিজানুর রহমান খান ৭৭ ভোট পেয়েছেন।
এবারের নির্বাচনে ডিএসইর বৈধ ভোটার ছিলেন ২৪৫ জন। এরমধ্যে ২২২ জন ভোট দিয়েছেন। এবারের নির্বাচনে ২ পরিচালক পদের বিপরীতে ৪ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। এরা হলেন- স্যার সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শরীফ আতাউর রহমান, ধানমন্ডি সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মিজানুর রহমান খান, র‌্যাপিড সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. হানিফ ভূইয়া ও কান্ট্রি স্টকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খাজা আসিফ আহমেদ।
নবনির্বাচিত ২ পরিচালক বর্তমান শেয়ারহোল্ডার পরিচালক খাজা গোলাম রসুল ও মোহাম্মদ শাহজাহানের স্থলাভিষিক্ত হবেন।
এর আগে হানিফ ভূঁইয়া দুই দফায় ডিএসইর পরিচালক নির্বাচিত হন। তিনি ২০০২ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত ডিএসইর পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া দ্বিতীয় দফায় ২০১২ সাল থেকে ২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। শরীফ আতাউর রহমান পুঁজিবাজারের সঙ্গে ১৯৮০ সাল থেকে জড়িত। এই দীর্ঘ যাত্রায় ডিএসইতে ৩ বার পরিচালক হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন। এ সময় ডিএসইর ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্বও পালন করেছেন। এ ছাড়া ১৯৯৭ সালে প্রতিষ্ঠিত ডিএসই মেম্বারস ক্লাবের প্রথম প্রেসিডেন্ট হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
শরীফ আতাউর রহমান সর্বপ্রথম ২০০১ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ডিএসইর পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপরে ২০০৬ সালের মার্চ থেকে ২০০৭ সালের মার্চ পর্যন্ত পরিচালক এবং ২০০৭ সালের মার্চ থেকে ২০০৯ সালের মার্চ পর্যন্ত ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেন। এরপরে ২০১০ সালের মার্চ থেকে ২০১৩ সালের জুন পর্যন্ত তৃতীয়বারের মতো পরিচালক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।
উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি মো. আবদুস সামাদের নেতৃত্বে ৩ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশনের অধীনে এবারের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। কমিশনের অন্য ২ সদস্য হলেন-হারুন সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. হারুন-উর-রশিদ ও এম অ্যান্ড জেড সিকিউরিটিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম মনজুর উদ্দিন আহমেদ।
ডিমিউচুয়ালাইজেশনের আইন অনুসারে স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালনা পর্ষদে মোট ১৩ জন সদস্য থাকেন। এর মধ্যে সাতজন স্বতন্ত্র পরিচালক, চারজন শেয়ারহোল্ডার পরিচালক, একজন কৌশলগত বিনিয়াগকারী পরিচালক ও ১ জন স্টক এক্সচেঞ্জের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। শেয়ারহোল্ডার পরিচালকরা স্টক এক্সচেঞ্জের সদস্যদের প্রত্যক্ষ ভোটে তিন বছরের জন্য নির্বাচিত হন। কারো মেয়াদ শেষ হওয়ার পর শূন্যপদ পূরণের জন্য নির্বাচন অনুষ্ঠান করে ডিএসই।
সর্বশেষ ২০১৬ সালে শেয়ারহোল্ডার পরিচালক নির্বাচনের মাধ্যমে ডিএসইর পর্ষদে আসেন স্টক এক্সচেঞ্জটির সাবেক সভাপতি রকিবুর রহমান।



সর্বশেষ খবর